ঢাকা শুক্রবার, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo যাঁদের গাড়ি পুড়িয়েছেন তারাই গাড়ি বের করতে ভয় পায়-শাহজাহান খান এমপি Logo তোঁয়ারাল্লাই আঁর পেট পুড়ের বলে শুরু করেছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভাষন Logo হাসিনার চট্টগ্রাম আগমনকে স্বাগত জানিয়ে মোছলেম উদ্দিন আহমদ এমপির পক্ষে শুভেচ্ছা মিছিলঃ Logo বোয়ালখালীতে মুহিউল উলুম ছুন্নিয়া ফোরকানিয়া মাদ্রাসার উদ্বোধন Logo বোয়ালখালী আমুচিয়া ইউনিয়নের নাডা বিলে মিলল নিখোঁজ অটোরিকশা চালকের লাশ Logo জেলা যুবলীগের জহুরকে শুভেচ্ছা জানালেন শ্রীপুর-খরণদ্বীপ যুবলীগ Logo হযরত সৈয়দ মারূফ, সৈয়দ কুতুব(রহ:)বার্ষিক ওরশ শরীফের প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন Logo মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আগমনে সি.এম.পির রুট ম্যাপ। Logo বোয়ালখালীতে গরু লুটের প্রতিবাদে মানববন্ধন প্রশাসনের কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি Logo বোয়ালখালীতে একাধিক ডাকাতি মামলার আসামী চোলাই মদসহ গ্রেফতার
ই-পেপার দেখুন

জন্ম ও মৃত্যুর ডাটাবেজ থেকে তথ্য উধাও

  • বার্তা কক্ষ ::
  • আপডেট সময় ০৪:৩০:৫৯ অপরাহ্ণ, মঙ্গলবার, ৩১ মে ২০২২
  • ৭০৪ বার পঠিত

ডাটাবেজ থেকে তথ্য উধাও হয়ে গেছে। জন্ম ও মৃত্যুর যে বিশাল পরিমাণ ডাটা সার্ভার থেকে উধাও হয়েছে তা তদন্ত করে আগামী এক মাসের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলেছেন হাইকোর্ট।

রোববার (২৯ মে) বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়ার নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. তানভীর আহমেদ।

জন্ম-মৃত্যু সনদ পাওয়ার ক্ষেত্রে জনগণ যেসব অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন তা রোধে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা এবং খামখেয়ালিপনার বিষয়টি উল্লেখ করে তা অবৈধ ঘোষণা করতে রুল জারি করেছেন আদালত।

এ সময় আদালত আরও জানাতে চায় বিশাল পরিমাণ ডাটা গায়েব হয়ে যাওয়ার বিষয়টি তদন্ত না করাকে কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না। জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন-২০১৯ এর কেন্দ্রীয় ডাটাবেজ তৈরি না করার কারণ আদালত জানতে চায়। যা তদন্তপূর্বক রিপোর্ট দিতে আগামী এক মাসের মধ্যে বলেছেন আদালত।

ট্যাগস :

যাঁদের গাড়ি পুড়িয়েছেন তারাই গাড়ি বের করতে ভয় পায়-শাহজাহান খান এমপি

জন্ম ও মৃত্যুর ডাটাবেজ থেকে তথ্য উধাও

আপডেট সময় ০৪:৩০:৫৯ অপরাহ্ণ, মঙ্গলবার, ৩১ মে ২০২২

ডাটাবেজ থেকে তথ্য উধাও হয়ে গেছে। জন্ম ও মৃত্যুর যে বিশাল পরিমাণ ডাটা সার্ভার থেকে উধাও হয়েছে তা তদন্ত করে আগামী এক মাসের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলেছেন হাইকোর্ট।

রোববার (২৯ মে) বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়ার নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. তানভীর আহমেদ।

জন্ম-মৃত্যু সনদ পাওয়ার ক্ষেত্রে জনগণ যেসব অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন তা রোধে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা এবং খামখেয়ালিপনার বিষয়টি উল্লেখ করে তা অবৈধ ঘোষণা করতে রুল জারি করেছেন আদালত।

এ সময় আদালত আরও জানাতে চায় বিশাল পরিমাণ ডাটা গায়েব হয়ে যাওয়ার বিষয়টি তদন্ত না করাকে কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না। জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন আইন-২০১৯ এর কেন্দ্রীয় ডাটাবেজ তৈরি না করার কারণ আদালত জানতে চায়। যা তদন্তপূর্বক রিপোর্ট দিতে আগামী এক মাসের মধ্যে বলেছেন আদালত।