ঢাকা ০১:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার দেখুন

এসএসসি ১৫ সেপ্টেম্বর,এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা নভেম্বরে

স্থগিত হওয়া এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ১৫ সেপ্টেম্বর শুরু হবে। এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা নভেম্বরে শুরু হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

রোববার (১৭ জুলাই) সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, সিলেটসহ সারাদেশে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ার কারণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আর নভেম্বরের শুরুতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘২৪ জুলাইয়ের মধ্যে নতুন বই ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের মধ্যে বই পাঠানো সম্ভব। আমরা বলেছিলাম আগস্টের মাঝামাঝি পরীক্ষা নিতে পারব। পূর্বাভাস রয়েছে— ওই সময়ে বন্যা হতে পারে। সে জন্য আমরা সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি পরীক্ষা নিতে চাই। সে কারণে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় ১৫ সেপ্টেম্বর এসএসসি, দাখিল ও এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত ১৯ জুন যে কাঠামো তৈরি করা হয়েছিল পরীক্ষা নিতে সেটিতে কোনো পরিবর্তন আসবে না। তবে সময়ের ক্ষেত্রে কিছুটা হেরফের হতে পারে।

তিনি বলেন, ‘আমরা ২৪ জুলাই বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সিলেট ও সুনামগঞ্জে শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌঁছে দেওয়া হবে।

মন্ত্রী জানান, সিলেটে এসএসসি পর্যায়ে ৬৮২ সেট বই লাগবে। সুনামগঞ্জে ১০ হাজার ৫৮৬ সেট বই দেওয়া হবে। এসএসসি, এইচএসসি, ভোকেশনাল ও সমমান পর্যায় সব মিলে সিলেটে বই প্রয়োজন হবে ২৫ হাজার ৬০১ টি আর সুনামগঞ্জে ৭৬ হাজার ৮৯৯টি বই।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘বন্যার কারণে বন্যা কবলিত এলাকায় শিখন ঘাটতি হয়েছে। এরই মধ্যে একটা প্রতিবেদন পেয়েছি, সার্বিক বিষয়ে এ ঘাটতি কাটিয়ে উঠতে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

শিক্ষামন্ত্রী আরও জানান, করোনা প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে পরীক্ষা গ্রহণে যে সময়ের হেরফের হয়েছে তা পরের বছর ধীরে ধীরে সমন্বয় করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বরাবরের মতো এবারও পরীক্ষা চলাকালীন সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ জুন এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। বন্যার কারণে তা স্থগিত করতে হয়।

ট্যাগস :

আপনার মতামত লিখুন

এসএসসি ১৫ সেপ্টেম্বর,এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা নভেম্বরে

আপডেট সময় ০৪:১৯:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ জুলাই ২০২২

স্থগিত হওয়া এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ১৫ সেপ্টেম্বর শুরু হবে। এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা নভেম্বরে শুরু হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

রোববার (১৭ জুলাই) সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, সিলেটসহ সারাদেশে বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ার কারণে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আর নভেম্বরের শুরুতে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘২৪ জুলাইয়ের মধ্যে নতুন বই ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের মধ্যে বই পাঠানো সম্ভব। আমরা বলেছিলাম আগস্টের মাঝামাঝি পরীক্ষা নিতে পারব। পূর্বাভাস রয়েছে— ওই সময়ে বন্যা হতে পারে। সে জন্য আমরা সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি পরীক্ষা নিতে চাই। সে কারণে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় ১৫ সেপ্টেম্বর এসএসসি, দাখিল ও এসএসসি ভোকেশনাল পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত ১৯ জুন যে কাঠামো তৈরি করা হয়েছিল পরীক্ষা নিতে সেটিতে কোনো পরিবর্তন আসবে না। তবে সময়ের ক্ষেত্রে কিছুটা হেরফের হতে পারে।

তিনি বলেন, ‘আমরা ২৪ জুলাই বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সিলেট ও সুনামগঞ্জে শিক্ষার্থীদের হাতে বই পৌঁছে দেওয়া হবে।

মন্ত্রী জানান, সিলেটে এসএসসি পর্যায়ে ৬৮২ সেট বই লাগবে। সুনামগঞ্জে ১০ হাজার ৫৮৬ সেট বই দেওয়া হবে। এসএসসি, এইচএসসি, ভোকেশনাল ও সমমান পর্যায় সব মিলে সিলেটে বই প্রয়োজন হবে ২৫ হাজার ৬০১ টি আর সুনামগঞ্জে ৭৬ হাজার ৮৯৯টি বই।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘বন্যার কারণে বন্যা কবলিত এলাকায় শিখন ঘাটতি হয়েছে। এরই মধ্যে একটা প্রতিবেদন পেয়েছি, সার্বিক বিষয়ে এ ঘাটতি কাটিয়ে উঠতে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

শিক্ষামন্ত্রী আরও জানান, করোনা প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে পরীক্ষা গ্রহণে যে সময়ের হেরফের হয়েছে তা পরের বছর ধীরে ধীরে সমন্বয় করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বরাবরের মতো এবারও পরীক্ষা চলাকালীন সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ জুন এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। বন্যার কারণে তা স্থগিত করতে হয়।