ঢাকা ০১:৫৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার দেখুন

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নুরুল আলম আর নেই

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নুরুল আলম (৭০) মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মঙ্গলবার ২০ ডিসেম্বর  বেলা পৌনে চারটায় নিজ বাড়িতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রতীক সেন।

নুরুল আলমের ছেলে রাশেদুল আলম সুমন জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক অসুস্থায় ভুগছেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে বেশ কিছুদিন ধরে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে লাইফ সাপোর্টে রাখা অবস্থায় আজ মঙ্গলবার সকালে অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে বোয়ালখালীর গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আনা হয়। সেখানে পৌনে ৩টার দিকে তার লাইফ সাপোর্ট খোলা হয়। বিকেল পৌনে ৪টায় আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে মৃত ঘোষণা করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রতীক সেন।

আগামীকাল (বুধবার) রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্মান জানানোর পর সকাল ১১টায় বোয়ালখালী সিরাজুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজ মাঠে ও দুপুর ২টায় সারোয়াতলী ইব্রাহীম নুর মোহাম্মদ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দ্বিতীয় জানাজার নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে দাফন করা হবে বলে জানান নুরুল আলমের ছোট ভাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নুরুল আলম ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নুরুল আলম পঞ্চম উপজেলা পরিষদ সাধারণ নির্বাচনে বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে নির্বাচিত হয়ে ছিলেন। এছাড়া তিনি ১৯৯৮ সালে বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সাধারন সম্পাদক নিবার্চিত হয়েছিলেন।

ট্যাগস :

আপনার মতামত লিখুন

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নুরুল আলম আর নেই

আপডেট সময় ০৬:২৬:১১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ডিসেম্বর ২০২২

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নুরুল আলম (৭০) মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মঙ্গলবার ২০ ডিসেম্বর  বেলা পৌনে চারটায় নিজ বাড়িতে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা প্রতীক সেন।

নুরুল আলমের ছেলে রাশেদুল আলম সুমন জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক অসুস্থায় ভুগছেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে বেশ কিছুদিন ধরে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে লাইফ সাপোর্টে রাখা অবস্থায় আজ মঙ্গলবার সকালে অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে বোয়ালখালীর গ্রামের বাড়িতে নিয়ে আনা হয়। সেখানে পৌনে ৩টার দিকে তার লাইফ সাপোর্ট খোলা হয়। বিকেল পৌনে ৪টায় আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে মৃত ঘোষণা করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রতীক সেন।

আগামীকাল (বুধবার) রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্মান জানানোর পর সকাল ১১টায় বোয়ালখালী সিরাজুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজ মাঠে ও দুপুর ২টায় সারোয়াতলী ইব্রাহীম নুর মোহাম্মদ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে দ্বিতীয় জানাজার নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে দাফন করা হবে বলে জানান নুরুল আলমের ছোট ভাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নুরুল আলম ।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নুরুল আলম পঞ্চম উপজেলা পরিষদ সাধারণ নির্বাচনে বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে নির্বাচিত হয়ে ছিলেন। এছাড়া তিনি ১৯৯৮ সালে বোয়ালখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সাধারন সম্পাদক নিবার্চিত হয়েছিলেন।