ঢাকা ০১:১৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জার্মান পার্লামেন্টের “পার্লামেন্টারী ব্রেকফাস্ট”-এ বক্তব্য রাখলেন প্রফেসর ইউনূস

  • বার্তা কক্ষ ::
  • আপডেট সময় ০৯:০২:৪৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৫ জুন ২০২২
  • ৫১৫ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক:জার্মান সরকারের শিক্ষা ও গবেষণা মন্ত্রণালয়ের পার্লামেন্টারী সেক্রেটারী মি. মারিও ব্র্যান্ডেনবার্গ নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূসকে গত ২ জুন ২০২২ অনুষ্ঠিত জার্মান পার্লামেন্ট বুন্ডেসটাগ (Bundestag) -এর “পার্লামেন্টারী ব্রেকফাস্ট”-এ আমন্ত্রণ জানান। মি. মারিও-র সঞ্চালনায় চার ঘন্টাব্যাপী এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন বিভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শের ১০ জন জার্মান পার্লামেন্ট সদস্য। প্রফেসর ইউনূসকে আমন্ত্রণ জানান হয়েছিল বিশ্বব্যাপী দারিদ্র বৃদ্ধির বর্তমান প্রবণতা, নি¤œ আয়ের মানুষদের উপর মহামারীর প্রভাব, বিশ্বজুড়ে ইউক্রেন যুদ্ধের প্রতিক্রিয়া, এবং সামাজিক ব্যবসার ধারণা প্রয়োগের মাধ্যমে এসব সমস্যা মোকাবেলার অভিজ্ঞতা বিষয়ে বক্তৃতা দিতে।

প্রফেসর ইউনূস নিম্ন আয়ের দেশগুলির মানুষদের নিকট ভ্যাকসিন পৌঁছে দিতে বৈশ্বিক ব্যবস্থার ভয়াবহ ব্যর্থতার উপর বিশেষভাবে আলোকপাত করেন। তিনি বুদ্ধিবৃত্তিক স্বত্বাধিকার প্রত্যাহারের মাধ্যমে ভ্যাকসিনকে একটি সর্বসাধারণের পণ্যে পরিণত করার প্রচারাভিযানে সমর্থন দিতে পার্লামেন্ট সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি যাবতীয় ভ্যাকসিন ও ওষুধকে দরিদ্র মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে নিয়ে আসতে তাঁর সোশ্যাল বিজনেস ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানী তৈরীর প্রস্তাবও তাঁদের কাছে তুলে ধরেন।

পার্লামেন্টারী সেক্রেটারী মি. মারিও ব্র্যান্ডেনবার্গ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী পার্লামেন্ট সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন যে, তিনি (জনাব মারিও) এর মধ্যে একটি প্রস্তাব পেশ করেছেন যেখানে তিনি এই উদ্দেশ্যে একটি সামাজিক ব্যবসা উদ্যোগের জন্য ব্যাপক রাষ্ট্রীয় সমর্থনের আহ্বান জানিয়েছেন। উপস্থিত পার্লামেন্ট সদস্যগণ সকলেই একমত হন যে, সমাজের বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে সামাজিক ব্যবসা উদ্যোগ একটি কার্যকর, টেকসই ও দীর্ঘমেয়াদী কর্মপন্থা হতে পারে।

সভায় উপস্থিত পার্লামেন্ট সদস্যদের মধ্যে ছিলেন ড. হলজের বেকার (এসপিডি), এমপি ফ্রাঙ্ক মুলার-রোজেনট্রিট (এফডিপি), এমপি সান্দ্রা বুবেনডরফের-লাইক্ট (এফডিপি), এমপি ভল্কমার ক্লাইন (সিডিইউ), এমপি ড. ক্রিস্টিয়ানে শেন্ডারলাইন (সিডিইউ), এমপি আলেকজান্ডার র‌্যাডওয়ান (সিএসইউ) এবং এমপি ক্যানান বেরাম (বুন্ডনিস ৯০ / দি গ্রুনেন)।

উল্লেখ্য যে, প্রফেসর ইউনূস “ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস” এর ১০ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বার্লিন সফর করছেন। বিশ্বব্যাপী সামাজিক ব্যবসার তত্ত¡ ও চর্চা সম্প্রসারিত করতে ১০ বছর পূর্বে বার্লিনে ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস নামে একটি সোশ্যাল বিজনেস কোম্পানী প্রতিষ্ঠিত হয়।

মিস সাসকিয়া ব্রæয়েস্টেন এর নেতৃত্বে কোম্পানীটি ব্রাজিল, ভারত, কলম্বিয়া, উগান্ডা, কেনিয়া ও রুয়ান্ডায় সামাজিক ব্যবসা গড়ে তুলতে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করে আসছে। ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস কোম্পানী এরই মধ্যে ৫টি দেশে ২০৭০টি সামাজিক ব্যবসা গড়ে তুলতে ১.৮০ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করেছে। এসব ব্যবসায়ে এ পর্যন্ত ১৩ লক্ষ মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে এবং ১.৭৮ কোটি মানুষ এসব ব্যবসা থেকে প্রত্যক্ষভাবে উপকৃত হচ্ছে।

ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস এর ১০ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত হয় ২ জুন যেখানে এর কার্যক্রমভ‚ক্ত সকল দেশের ১৫০ জন প্রতিনিধি ও ঊর্দ্ধতন নির্বাহীগণ যোগ দেন। অনুষ্ঠানে আরো অংশ নেন জার্মানী ও ইউরোপের অন্যান্য দেশ থেকে আগত ইউনূস সোশ্যাল বিজনেসের সমর্থকগণ, কর্পোরেট নেতৃবৃন্দ, এবং মিডিয়া প্রতিনিধিগণ। প্রফেসর ইউনূস বলেন, তিনি আনন্দিত যে, মাত্র বিশের কোঠায় বয়স বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য পাশ করা দুজন জার্মান তরুণী যাঁরা একরকম শূন্য হাতে ইউনূস সোশ্যাল বিজনেসের গোড়াপত্তন করেছিলেন তাঁদের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠানটি আজ বিশ্বের লক্ষ লক্ষ মানুষের কাছে পৌঁছে গেছে। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশ থেকে আগত প্রতিনিধিরা তাঁদের এ পর্যন্ত বিভিন্ন অর্জন এবং আগামী এক দশকের কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরেন।

৪ জুন প্রফেসর ইউনূস ইটালীর ট্রেনটোর উদ্দ্যেশে বার্লিন ত্যাগ করেন যেখানে তিনি “ট্রেনটো অর্থনৈতিক উৎসব” (Trento Festival of Economics) শীর্ষক একটি বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সম্মেলনে টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য সামাজিক ব্যবসা উদ্যোগ বিষয়ে ভাষণ দেবেন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

জার্মান পার্লামেন্টের “পার্লামেন্টারী ব্রেকফাস্ট”-এ বক্তব্য রাখলেন প্রফেসর ইউনূস

আপডেট সময় ০৯:০২:৪৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৫ জুন ২০২২

অনলাইন ডেস্ক:জার্মান সরকারের শিক্ষা ও গবেষণা মন্ত্রণালয়ের পার্লামেন্টারী সেক্রেটারী মি. মারিও ব্র্যান্ডেনবার্গ নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূসকে গত ২ জুন ২০২২ অনুষ্ঠিত জার্মান পার্লামেন্ট বুন্ডেসটাগ (Bundestag) -এর “পার্লামেন্টারী ব্রেকফাস্ট”-এ আমন্ত্রণ জানান। মি. মারিও-র সঞ্চালনায় চার ঘন্টাব্যাপী এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন বিভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শের ১০ জন জার্মান পার্লামেন্ট সদস্য। প্রফেসর ইউনূসকে আমন্ত্রণ জানান হয়েছিল বিশ্বব্যাপী দারিদ্র বৃদ্ধির বর্তমান প্রবণতা, নি¤œ আয়ের মানুষদের উপর মহামারীর প্রভাব, বিশ্বজুড়ে ইউক্রেন যুদ্ধের প্রতিক্রিয়া, এবং সামাজিক ব্যবসার ধারণা প্রয়োগের মাধ্যমে এসব সমস্যা মোকাবেলার অভিজ্ঞতা বিষয়ে বক্তৃতা দিতে।

প্রফেসর ইউনূস নিম্ন আয়ের দেশগুলির মানুষদের নিকট ভ্যাকসিন পৌঁছে দিতে বৈশ্বিক ব্যবস্থার ভয়াবহ ব্যর্থতার উপর বিশেষভাবে আলোকপাত করেন। তিনি বুদ্ধিবৃত্তিক স্বত্বাধিকার প্রত্যাহারের মাধ্যমে ভ্যাকসিনকে একটি সর্বসাধারণের পণ্যে পরিণত করার প্রচারাভিযানে সমর্থন দিতে পার্লামেন্ট সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি যাবতীয় ভ্যাকসিন ও ওষুধকে দরিদ্র মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে নিয়ে আসতে তাঁর সোশ্যাল বিজনেস ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানী তৈরীর প্রস্তাবও তাঁদের কাছে তুলে ধরেন।

পার্লামেন্টারী সেক্রেটারী মি. মারিও ব্র্যান্ডেনবার্গ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী পার্লামেন্ট সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেন যে, তিনি (জনাব মারিও) এর মধ্যে একটি প্রস্তাব পেশ করেছেন যেখানে তিনি এই উদ্দেশ্যে একটি সামাজিক ব্যবসা উদ্যোগের জন্য ব্যাপক রাষ্ট্রীয় সমর্থনের আহ্বান জানিয়েছেন। উপস্থিত পার্লামেন্ট সদস্যগণ সকলেই একমত হন যে, সমাজের বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে সামাজিক ব্যবসা উদ্যোগ একটি কার্যকর, টেকসই ও দীর্ঘমেয়াদী কর্মপন্থা হতে পারে।

সভায় উপস্থিত পার্লামেন্ট সদস্যদের মধ্যে ছিলেন ড. হলজের বেকার (এসপিডি), এমপি ফ্রাঙ্ক মুলার-রোজেনট্রিট (এফডিপি), এমপি সান্দ্রা বুবেনডরফের-লাইক্ট (এফডিপি), এমপি ভল্কমার ক্লাইন (সিডিইউ), এমপি ড. ক্রিস্টিয়ানে শেন্ডারলাইন (সিডিইউ), এমপি আলেকজান্ডার র‌্যাডওয়ান (সিএসইউ) এবং এমপি ক্যানান বেরাম (বুন্ডনিস ৯০ / দি গ্রুনেন)।

উল্লেখ্য যে, প্রফেসর ইউনূস “ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস” এর ১০ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বার্লিন সফর করছেন। বিশ্বব্যাপী সামাজিক ব্যবসার তত্ত¡ ও চর্চা সম্প্রসারিত করতে ১০ বছর পূর্বে বার্লিনে ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস নামে একটি সোশ্যাল বিজনেস কোম্পানী প্রতিষ্ঠিত হয়।

মিস সাসকিয়া ব্রæয়েস্টেন এর নেতৃত্বে কোম্পানীটি ব্রাজিল, ভারত, কলম্বিয়া, উগান্ডা, কেনিয়া ও রুয়ান্ডায় সামাজিক ব্যবসা গড়ে তুলতে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করে আসছে। ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস কোম্পানী এরই মধ্যে ৫টি দেশে ২০৭০টি সামাজিক ব্যবসা গড়ে তুলতে ১.৮০ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করেছে। এসব ব্যবসায়ে এ পর্যন্ত ১৩ লক্ষ মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে এবং ১.৭৮ কোটি মানুষ এসব ব্যবসা থেকে প্রত্যক্ষভাবে উপকৃত হচ্ছে।

ইউনূস সোশ্যাল বিজনেস এর ১০ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠিত হয় ২ জুন যেখানে এর কার্যক্রমভ‚ক্ত সকল দেশের ১৫০ জন প্রতিনিধি ও ঊর্দ্ধতন নির্বাহীগণ যোগ দেন। অনুষ্ঠানে আরো অংশ নেন জার্মানী ও ইউরোপের অন্যান্য দেশ থেকে আগত ইউনূস সোশ্যাল বিজনেসের সমর্থকগণ, কর্পোরেট নেতৃবৃন্দ, এবং মিডিয়া প্রতিনিধিগণ। প্রফেসর ইউনূস বলেন, তিনি আনন্দিত যে, মাত্র বিশের কোঠায় বয়স বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সদ্য পাশ করা দুজন জার্মান তরুণী যাঁরা একরকম শূন্য হাতে ইউনূস সোশ্যাল বিজনেসের গোড়াপত্তন করেছিলেন তাঁদের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠানটি আজ বিশ্বের লক্ষ লক্ষ মানুষের কাছে পৌঁছে গেছে। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন দেশ থেকে আগত প্রতিনিধিরা তাঁদের এ পর্যন্ত বিভিন্ন অর্জন এবং আগামী এক দশকের কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরেন।

৪ জুন প্রফেসর ইউনূস ইটালীর ট্রেনটোর উদ্দ্যেশে বার্লিন ত্যাগ করেন যেখানে তিনি “ট্রেনটো অর্থনৈতিক উৎসব” (Trento Festival of Economics) শীর্ষক একটি বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সম্মেলনে টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য সামাজিক ব্যবসা উদ্যোগ বিষয়ে ভাষণ দেবেন।