ঢাকা ০৫:০৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার দেখুন

বাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে  এক মাছ ব্যবসায়ীর মৃত্যু

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার শাকপুরা চৌমুহনী বাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নেজাম উদ্দিন (৪০) নামের এক মাছ ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে।

৩১ জুলাই, রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বৈদ্যুতিক লাইট জ্বালানোর সময় তিনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। নিহত নেজাম উদ্দিন উপজেলার পশ্চিম শাকপুরার ইয়াছিন  তালুকদার পাড়ার মৃত নূর হোসেনের ছেলে।
নিহতের স্বজন মো. মোজাম্মেল জানান, সন্ধ্যায় হোল্ডারে বাল্ব লাগানোর সময় নেজাম বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে রেফার করেন। সেখানে নিয়ে গেলে রাত ৯টার দিকে চমেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক নেজামকে মৃত ঘোষণা করেছেন।
এর আগে গত ৫ জুন দুপুর ২টার দিকে শাকপুরা চৌমুহনী বাজারে বৈদ্যুতিক তারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মাছ বিক্রেতা রনি দাস (২৫) মারা যান। রণি পটিয়া উপজেলার কচুয়াই গ্রামের রণজিত দাসের ছেলে। রনি গত ৩ মাস আগে বিয়ে করেছিলেন। এছাড়া ওই বাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে আহত হয়েছিলেন উপজেলার সারোয়াতলীর ইমামুল্লাচরের বাসিন্দা মো. ইব্রাহীম। তিনি চমেক হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে দীর্ঘদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন।
স্থানীয়দের অভিযোগ, বাজারে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ করেন মঞ্জুর নামের এক জেনারেটর ব্যবসায়ী। তিনি জেনারেটর থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের কথা বলে টাকা নিলেও মূলত বৈদ্যুতিক লাইন থেকে অবৈধ উপায়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ করেন।

ট্যাগস :

আপনার মতামত লিখুন

বাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে  এক মাছ ব্যবসায়ীর মৃত্যু

আপডেট সময় ১২:৪৯:৫৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১ অগাস্ট ২০২২

চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার শাকপুরা চৌমুহনী বাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে নেজাম উদ্দিন (৪০) নামের এক মাছ ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে।

৩১ জুলাই, রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বৈদ্যুতিক লাইট জ্বালানোর সময় তিনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। নিহত নেজাম উদ্দিন উপজেলার পশ্চিম শাকপুরার ইয়াছিন  তালুকদার পাড়ার মৃত নূর হোসেনের ছেলে।
নিহতের স্বজন মো. মোজাম্মেল জানান, সন্ধ্যায় হোল্ডারে বাল্ব লাগানোর সময় নেজাম বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে রেফার করেন। সেখানে নিয়ে গেলে রাত ৯টার দিকে চমেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক নেজামকে মৃত ঘোষণা করেছেন।
এর আগে গত ৫ জুন দুপুর ২টার দিকে শাকপুরা চৌমুহনী বাজারে বৈদ্যুতিক তারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মাছ বিক্রেতা রনি দাস (২৫) মারা যান। রণি পটিয়া উপজেলার কচুয়াই গ্রামের রণজিত দাসের ছেলে। রনি গত ৩ মাস আগে বিয়ে করেছিলেন। এছাড়া ওই বাজারে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে আহত হয়েছিলেন উপজেলার সারোয়াতলীর ইমামুল্লাচরের বাসিন্দা মো. ইব্রাহীম। তিনি চমেক হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে দীর্ঘদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন।
স্থানীয়দের অভিযোগ, বাজারে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ করেন মঞ্জুর নামের এক জেনারেটর ব্যবসায়ী। তিনি জেনারেটর থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের কথা বলে টাকা নিলেও মূলত বৈদ্যুতিক লাইন থেকে অবৈধ উপায়ে বিদ্যুৎ সরবরাহ করেন।