ঢাকা ০৫:০৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার দেখুন

পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের জন্য সুখবর আসছে: বিএসইসি চেয়ারম্যান

  • ঢাকা ব্যুরো
  • আপডেট সময় ১১:০১:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩
  • ৬৫৯ বার পঠিত

দেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের জন্য মার্চের মধ্যে সুখবর আসছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন- বিএসইসির চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলাম। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় কমিশনের কার্যালয়ে শীর্ষ ব্রোকারদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

এদিন সিইও ফোরামের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন- বিএসইসি। বর্তমান পরিস্থিতিতে করণীয় ঠিক করতে এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। বিএসইসি চেয়ারম্যান বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, আগামী মার্চ মাসের মধ্যে পুঁজিবাজারের জন্য সুখবর আসছে। এই সময়ের মধ্যে পুঁজিবাজারের এক্সপোজার থেকে বাদ যাবে বন্ডের বিনিয়োগ। এর ফলে বাজারে প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের সুযোগ তৈরি হবে।

বৈঠকে পুঁজিবাজার থেকে ফ্লোর প্রাইস ওঠানোর ব্যাপারেও নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। এ ব্যাপারে বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, ‘আপাতত ফ্লোর প্রাইস উঠানো হবে না।’

পুঁজিবাজারে লেনদেনে গতি ফেরাতে তালিকাভুক্ত ১৬৯ কোম্পানির ফ্লোর প্রাইস বা সর্বনিম্ন মূল্যস্তর তুলে নেওয়া হয়েছিল গত বছরের ২১ ডিসেম্বর। একইসঙ্গে এসব কোম্পানির শেয়ার দর এক দিনে সর্বোচ্চ কমায় সীমা নির্ধারিত হয়েছিল ১ শতাংশ।

তবে গত কয়েকদিন গুজব ছড়ানো হয় যে, ফ্লোর প্রাইস উঠিয়ে দিচ্ছে বিএসইসি। এতে পুঁজিবাজারে টানা দরপতন শুরু হয়। এ ব্যাপারে শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম আশ্বস্ত করে বলেন, ‘পুঁজিবাজারের গতি ফেরাতে বিএসইসি কাজ করছে।’

এর আগে সোমবার বিএসইসির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তাও গণমাধ্যমকে জানান, আপাতত পুঁজিবাজার থেকে ফ্লোর প্রাইস উঠছে না। তিনি এও জানান, সূচক ৬৭০০ অতিক্রমের পর পুঁজিবাজারের অবস্থা ভালো হলে ফ্লোর প্রাইস তুলে দেওয়া হবে।

সূত্র:: ঢাকা-টাইমস>;.

ট্যাগস :

আপনার মতামত লিখুন

পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের জন্য সুখবর আসছে: বিএসইসি চেয়ারম্যান

আপডেট সময় ১১:০১:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩

দেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের জন্য মার্চের মধ্যে সুখবর আসছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন- বিএসইসির চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলাম। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় কমিশনের কার্যালয়ে শীর্ষ ব্রোকারদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

এদিন সিইও ফোরামের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন- বিএসইসি। বর্তমান পরিস্থিতিতে করণীয় ঠিক করতে এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। বিএসইসি চেয়ারম্যান বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম বলেন, আগামী মার্চ মাসের মধ্যে পুঁজিবাজারের জন্য সুখবর আসছে। এই সময়ের মধ্যে পুঁজিবাজারের এক্সপোজার থেকে বাদ যাবে বন্ডের বিনিয়োগ। এর ফলে বাজারে প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের সুযোগ তৈরি হবে।

বৈঠকে পুঁজিবাজার থেকে ফ্লোর প্রাইস ওঠানোর ব্যাপারেও নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। এ ব্যাপারে বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, ‘আপাতত ফ্লোর প্রাইস উঠানো হবে না।’

পুঁজিবাজারে লেনদেনে গতি ফেরাতে তালিকাভুক্ত ১৬৯ কোম্পানির ফ্লোর প্রাইস বা সর্বনিম্ন মূল্যস্তর তুলে নেওয়া হয়েছিল গত বছরের ২১ ডিসেম্বর। একইসঙ্গে এসব কোম্পানির শেয়ার দর এক দিনে সর্বোচ্চ কমায় সীমা নির্ধারিত হয়েছিল ১ শতাংশ।

তবে গত কয়েকদিন গুজব ছড়ানো হয় যে, ফ্লোর প্রাইস উঠিয়ে দিচ্ছে বিএসইসি। এতে পুঁজিবাজারে টানা দরপতন শুরু হয়। এ ব্যাপারে শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম আশ্বস্ত করে বলেন, ‘পুঁজিবাজারের গতি ফেরাতে বিএসইসি কাজ করছে।’

এর আগে সোমবার বিএসইসির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তাও গণমাধ্যমকে জানান, আপাতত পুঁজিবাজার থেকে ফ্লোর প্রাইস উঠছে না। তিনি এও জানান, সূচক ৬৭০০ অতিক্রমের পর পুঁজিবাজারের অবস্থা ভালো হলে ফ্লোর প্রাইস তুলে দেওয়া হবে।

সূত্র:: ঢাকা-টাইমস>;.