ঢাকা ০৯:৫৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ড Logo কলকাতার কৃষ্ণ মাটিতে ফেলা হয়েছে এমপি আনারের মরদেহের কিছু টুকরো Logo শনিবার রাজধানীর যেসব সড়ক অর্ধবেলা বন্ধ থাকবে Logo সাড়ে ৩ লাখ টাকা উদ্ধার, খাতুনগঞ্জে ক্যাশবাক্স ভেঙে চুরি Logo এপ্রিলে সড়কে ঝরেছে ৬৭৯ প্রাণ, ক্ষতি ২ হাজার কোটি টাকার বেশি Logo চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে ৪৬ বিদ্যালয়ের শতভাগ পাস Logo বোয়ালখালীতে সাংবাদিক কে, এইচ, সামজাদের জন্মদিন পালিত Logo স্মার্ট পৌরসভা গড়তে সকলের সহযোগিতা চায়লেন পৌরমেয়র জহুর  Logo কাপ্তাই রাস্তার মাথায় ছোট যানবাহন টিকটিকি প্রবেশ করিলে চাঁদা দিতে হবে। Logo বোয়ালখালীতে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ  পোপাদিয়া শাখার শুকনা ইফতার বিতরন
ই-পেপার দেখুন

ইসিতে আপিল শুনানি শেষ, ৫৬০ আবেদনে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন ২৮০ জন

  • বার্তা কক্ষ ::
  • আপডেট সময় ০৮:১২:৫৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২৩
  • ৫৫১ বার পঠিত

নির্বাচন কমিশনে আপিল শুনানির শেষ দিনে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন আরও ২২ জন। এ নিয়ে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য ইসিতে জমা পড়া ৫৬০টি আপিলের মধ্যে ২৮০ জন প্রার্থিতা ফিরে পেলেন। শুক্রবার আগারগাঁও নির্বাচন কমিশনে আপিল শুনানি কার্যক্রম শেষে ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত রবিবার থেকে শুরু হয়ে ছয় দিন চলে শুনানি কার্যক্রম। প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বে কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং প্রার্থীর পক্ষে তার আইনজীবী ও প্রার্থী সশরীরে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে উপস্থিত ছিলেন।

রবিবার প্রথম দিন ৯৪টি আপিল আবেদন শুনানি করে নির্বাচন কমিশন। এতে ৫৬ জন প্রার্থিতা ফিরে পান এবং ৩২ জনের আবেদন নামঞ্জুর হয়। ছয়টি আপিলের রায় পেন্ডিং রাখা হয়। চারটি আপিলের বাদী অনুপস্থিত ছিলেন।

দ্বিতীয় দিনে ৯৯ জনের আপিল শুনানিতে ৫১ জন প্রার্থিতা ফিরে পান। আপিল আবেদন নামঞ্জুর হয় ৪১ জনের। আটটি আবেদনের সিদ্ধান্ত হয়নি। তৃতীয় দিনে ৯৮ জনের আপিল শুনানি হয়। এতে ৬১ জন প্রার্থিতা ফিরে পান। আপিল আবেদন নামঞ্জুর হয় ৩৫ জনের। দুটি আবেদনের সিদ্ধান্ত হয়নি।

চতুর্থ দিনে ৪৬ জন প্রার্থিতা ফিরে পান। ৫০ জনের আপিল নামঞ্জুর হয়। পঞ্চম দিনে প্রার্থিতা ফিরে পান ৪৪ জন। নামঞ্জুর হয় ৫২ আবেদন। চারজনের বিরুদ্ধে রায় স্থগিত রাখে ইসি। ষষ্ঠ এবং শেষ দিনে এসে ২২ জন প্রার্থিতা ফিরে পান এবং ৬২ জনের আবেদন না মঞ্জুর হয়।

রিটার্নিং কর্মকর্তার প্রার্থিতা বাছাইয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরের সময়সীমা শেষ হয় গত শনিবার। আপিল দায়েরের ৫ দিনে মোট ৫৬১টি আপিল জমা পড়ে। প্রথম দিন ৪২, দ্বিতীয় দিন ১৪১, তৃতীয় দিন ১৫৫, চতুর্থ দিন ৯৩ জন এবং পঞ্চম দিন ১৩০ জন আপিল আবেদন করেন। এসব আপিল আবেদনের মধ্যে ৩২জন আবেদন করেন বৈধ প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল চেয়ে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় আগামী ১৭ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ হবে ১৮ ডিসেম্বর। নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা শুরু সেদিন থেকেই। চলবে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। ভোট হবে আগামী ৭ জানুয়ারি।

ট্যাগস :

আপনার মতামত লিখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ড

ইসিতে আপিল শুনানি শেষ, ৫৬০ আবেদনে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন ২৮০ জন

আপডেট সময় ০৮:১২:৫৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২৩

নির্বাচন কমিশনে আপিল শুনানির শেষ দিনে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন আরও ২২ জন। এ নিয়ে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য ইসিতে জমা পড়া ৫৬০টি আপিলের মধ্যে ২৮০ জন প্রার্থিতা ফিরে পেলেন। শুক্রবার আগারগাঁও নির্বাচন কমিশনে আপিল শুনানি কার্যক্রম শেষে ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত রবিবার থেকে শুরু হয়ে ছয় দিন চলে শুনানি কার্যক্রম। প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালের নেতৃত্বে কমিশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এবং প্রার্থীর পক্ষে তার আইনজীবী ও প্রার্থী সশরীরে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে উপস্থিত ছিলেন।

রবিবার প্রথম দিন ৯৪টি আপিল আবেদন শুনানি করে নির্বাচন কমিশন। এতে ৫৬ জন প্রার্থিতা ফিরে পান এবং ৩২ জনের আবেদন নামঞ্জুর হয়। ছয়টি আপিলের রায় পেন্ডিং রাখা হয়। চারটি আপিলের বাদী অনুপস্থিত ছিলেন।

দ্বিতীয় দিনে ৯৯ জনের আপিল শুনানিতে ৫১ জন প্রার্থিতা ফিরে পান। আপিল আবেদন নামঞ্জুর হয় ৪১ জনের। আটটি আবেদনের সিদ্ধান্ত হয়নি। তৃতীয় দিনে ৯৮ জনের আপিল শুনানি হয়। এতে ৬১ জন প্রার্থিতা ফিরে পান। আপিল আবেদন নামঞ্জুর হয় ৩৫ জনের। দুটি আবেদনের সিদ্ধান্ত হয়নি।

চতুর্থ দিনে ৪৬ জন প্রার্থিতা ফিরে পান। ৫০ জনের আপিল নামঞ্জুর হয়। পঞ্চম দিনে প্রার্থিতা ফিরে পান ৪৪ জন। নামঞ্জুর হয় ৫২ আবেদন। চারজনের বিরুদ্ধে রায় স্থগিত রাখে ইসি। ষষ্ঠ এবং শেষ দিনে এসে ২২ জন প্রার্থিতা ফিরে পান এবং ৬২ জনের আবেদন না মঞ্জুর হয়।

রিটার্নিং কর্মকর্তার প্রার্থিতা বাছাইয়ের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরের সময়সীমা শেষ হয় গত শনিবার। আপিল দায়েরের ৫ দিনে মোট ৫৬১টি আপিল জমা পড়ে। প্রথম দিন ৪২, দ্বিতীয় দিন ১৪১, তৃতীয় দিন ১৫৫, চতুর্থ দিন ৯৩ জন এবং পঞ্চম দিন ১৩০ জন আপিল আবেদন করেন। এসব আপিল আবেদনের মধ্যে ৩২জন আবেদন করেন বৈধ প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিল চেয়ে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় আগামী ১৭ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ হবে ১৮ ডিসেম্বর। নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা শুরু সেদিন থেকেই। চলবে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। ভোট হবে আগামী ৭ জানুয়ারি।