ঢাকা ০৫:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
Logo রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ড Logo কলকাতার কৃষ্ণ মাটিতে ফেলা হয়েছে এমপি আনারের মরদেহের কিছু টুকরো Logo শনিবার রাজধানীর যেসব সড়ক অর্ধবেলা বন্ধ থাকবে Logo সাড়ে ৩ লাখ টাকা উদ্ধার, খাতুনগঞ্জে ক্যাশবাক্স ভেঙে চুরি Logo এপ্রিলে সড়কে ঝরেছে ৬৭৯ প্রাণ, ক্ষতি ২ হাজার কোটি টাকার বেশি Logo চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডে ৪৬ বিদ্যালয়ের শতভাগ পাস Logo বোয়ালখালীতে সাংবাদিক কে, এইচ, সামজাদের জন্মদিন পালিত Logo স্মার্ট পৌরসভা গড়তে সকলের সহযোগিতা চায়লেন পৌরমেয়র জহুর  Logo কাপ্তাই রাস্তার মাথায় ছোট যানবাহন টিকটিকি প্রবেশ করিলে চাঁদা দিতে হবে। Logo বোয়ালখালীতে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ  পোপাদিয়া শাখার শুকনা ইফতার বিতরন
ই-পেপার দেখুন

নগরে বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা, বেড়েছে দুর্ভোগ

  • বার্তা কক্ষ ::
  • আপডেট সময় ০৬:০৭:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩
  • ৬০৭ বার পঠিত

চট্টগ্রাম: নগরে আবারও জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। বুধবার (২৪ মে) সকাল থেকে বৃষ্টিতে এ জলাবদ্ধতা দেখা দেয়।বৃষ্টি শুরুর পর আধা ঘণ্টার মধ্যে নগরের বিভিন্ন এলাকা পানিতে তলিয়ে যায়।

দুপুরে বৃষ্টি থামার এক থেকে দেড় ঘণ্টা পরও কোথাও গোড়ালি, কোথাও হাঁটুসমান পানি জমে যায়।এতে দুর্ভোগে পড়তে হয় নগরবাসীকে। নগরের চকবাজার, ষোলশহর, ২ নম্বর গেট, শুলকবহর, কাপাসগোলা, কাতালগঞ্জ, ডিসি সড়ক, পাঠানটুলী এলাকায় পানি জমে যায়।

চকবাজারের বাসিন্দা ও মুদি দোকানি মাসকুর রফিক বলেন, বৃষ্টির কারণে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। হাঁটুপানিতে তলিয়ে গেছে এলাকার রাস্তাঘাট। এতে বিপণী বিতান ও কাঁচাবাজারে আসা মানুষ ভোগান্তিতে পড়েন।

স্থানীয়রা জানান, বিভিন্ন এলাকার খালে কাজ চলমান থাকায় নালার পানি চলাচল বন্ধ রয়েছে। বৃষ্টি ছাড়াও অনেক অলিগলিতে পানি জমে আছে। বাড়তি ভাড়া দিয়ে অনেকে রিকশায় চলাচল করছে। বাঁধের কারণে বৃষ্টির পানিপ্রবাহ বাধাগ্রস্ত হওয়ায় তা রাস্তা ও অলিগলিতে জমে যায়। নগরের চকবাজার, বাদুড়তলা, কাপাসগোলাসহ বিভিন্ন এলাকায় গোড়ালি থেকে হাঁটু পর্যন্ত পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। এভাবে জলাবদ্ধতা হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন মানুষ। বিশেষ করে সকালে অফিসগামী লোকদের ভোগান্তি ছিল বেশি।

নগরের জলাবদ্ধতা নিরসনে প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে চারটি প্রকল্পের কাজ চলছে। এর মধ্যে সিডিএ দুটি, পানি উন্নয়ন বোর্ড একটি ও সিটি করপোরেশন একটি প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ করছে। ৫-৯ বছর ধরে এসব প্রকল্পের কাজ চললেও একটি প্রকল্পের কাজও শেষ হয়নি।

চট্টগ্রাম আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বুধবার (২৪ মে) দুপুর ২টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টার ১০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। চট্টগ্রামসহ দেশের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ পরিস্থিতি আরও দুইদিন থাকতে পারে।

চট্টগ্রাম আবহাওয়া অফিসের সহকারী আবহাওয়াবিদ সুমন সাহা বাংলানিউজকে জানান, এ সময় সাধারণভাবে যে বৃষ্টিপাত হয় তা-ই হচ্ছে। আরও দুইদিন এই পরিস্থিতি থাকবে। রাতের দিকে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়তে পারে। আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকলেও গত ২৪ ঘণ্টায় মাত্র ১০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।

ট্যাগস :

আপনার মতামত লিখুন

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অগ্নিকাণ্ড

নগরে বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা, বেড়েছে দুর্ভোগ

আপডেট সময় ০৬:০৭:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩

চট্টগ্রাম: নগরে আবারও জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। বুধবার (২৪ মে) সকাল থেকে বৃষ্টিতে এ জলাবদ্ধতা দেখা দেয়।বৃষ্টি শুরুর পর আধা ঘণ্টার মধ্যে নগরের বিভিন্ন এলাকা পানিতে তলিয়ে যায়।

দুপুরে বৃষ্টি থামার এক থেকে দেড় ঘণ্টা পরও কোথাও গোড়ালি, কোথাও হাঁটুসমান পানি জমে যায়।এতে দুর্ভোগে পড়তে হয় নগরবাসীকে। নগরের চকবাজার, ষোলশহর, ২ নম্বর গেট, শুলকবহর, কাপাসগোলা, কাতালগঞ্জ, ডিসি সড়ক, পাঠানটুলী এলাকায় পানি জমে যায়।

চকবাজারের বাসিন্দা ও মুদি দোকানি মাসকুর রফিক বলেন, বৃষ্টির কারণে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। হাঁটুপানিতে তলিয়ে গেছে এলাকার রাস্তাঘাট। এতে বিপণী বিতান ও কাঁচাবাজারে আসা মানুষ ভোগান্তিতে পড়েন।

স্থানীয়রা জানান, বিভিন্ন এলাকার খালে কাজ চলমান থাকায় নালার পানি চলাচল বন্ধ রয়েছে। বৃষ্টি ছাড়াও অনেক অলিগলিতে পানি জমে আছে। বাড়তি ভাড়া দিয়ে অনেকে রিকশায় চলাচল করছে। বাঁধের কারণে বৃষ্টির পানিপ্রবাহ বাধাগ্রস্ত হওয়ায় তা রাস্তা ও অলিগলিতে জমে যায়। নগরের চকবাজার, বাদুড়তলা, কাপাসগোলাসহ বিভিন্ন এলাকায় গোড়ালি থেকে হাঁটু পর্যন্ত পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়। এভাবে জলাবদ্ধতা হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন মানুষ। বিশেষ করে সকালে অফিসগামী লোকদের ভোগান্তি ছিল বেশি।

নগরের জলাবদ্ধতা নিরসনে প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে চারটি প্রকল্পের কাজ চলছে। এর মধ্যে সিডিএ দুটি, পানি উন্নয়ন বোর্ড একটি ও সিটি করপোরেশন একটি প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ করছে। ৫-৯ বছর ধরে এসব প্রকল্পের কাজ চললেও একটি প্রকল্পের কাজও শেষ হয়নি।

চট্টগ্রাম আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বুধবার (২৪ মে) দুপুর ২টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টার ১০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। চট্টগ্রামসহ দেশের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ পরিস্থিতি আরও দুইদিন থাকতে পারে।

চট্টগ্রাম আবহাওয়া অফিসের সহকারী আবহাওয়াবিদ সুমন সাহা বাংলানিউজকে জানান, এ সময় সাধারণভাবে যে বৃষ্টিপাত হয় তা-ই হচ্ছে। আরও দুইদিন এই পরিস্থিতি থাকবে। রাতের দিকে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়তে পারে। আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকলেও গত ২৪ ঘণ্টায় মাত্র ১০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।