ঢাকা ০৩:৩৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

৬ প্রবীণ গুণী পেলেন ‘ক্লিক’ চট্টলার বীর সম্মাননা

  • বার্তা কক্ষ ::
  • আপডেট সময় ০২:৪৯:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২১
  • ৬১৩ বার পঠিত

বার্ণাঢ্য দুই দিনব্যাপী ক্লিক ফেস্ট ২০২১ এর দ্বিতীয় দিনে ৬ প্রবীণ গুণী ব্যক্তি পেয়েছেন ‘ক্লিক’ চট্টলার বীর সম্মাননা।

আজ ১০ ডিসেম্বর, শুক্রবার জিইসি কনভেনশন সেন্টারে ক্লিক বিজয় উৎসবে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব চট্টলার বীরদের হাতে সম্মানা স্মারক তুলে দেওয়া হয়।

সম্মাননা প্রাপ্ত ৬ প্রবীণ গুণী ব্যক্তিরা হলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষক ডা. মাহফুজুর রহমান, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ারুল আজিম আরিফ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. শিরীণ আখতার, ‘একুশে পদক’ প্রাপ্ত নাট্যশিল্পী আহমেদ ইকবাল হায়দার, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক প্রশাসক ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ খোরশেদ আলম সুজন এবং ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি তরফদার রুহুল আমীন।

অপরদিকে ক্লিক বিজয় উৎসবের দ্বিতীয় দিনে তারুণ্যের কাণ্ডারি হিসেবে মনোনিত ৮ ব্যক্তির হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন আমন্ত্রিত অতিথিরা। সম্মাননা প্রাপ্তরা হলেন, পিএইচপি শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জহিরুল ইসলাম রিংকু, জুনিয়র চেম্বার চট্টগ্রাম কসমোপলিটনের প্রেসিডেন্ট টিপু সুলতান, মানবাধিকার কর্মী আমিনুল হক বাবু, প্রকৌশলী সাইদুজ্জামান কিরণ, দৈনিক সমকালের চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান সাংবাদিক সারোয়ার সুমন, উদ্যোক্তা এ কে এম শহীদ চৌধুরী, সংগঠক জিনাত সোহানা চৌধুরী, শাহ এমরান মো. আলী চৌধুরী।

এ বিষয়ে ক্লিক সম্পাদক জালাল উদ্দীন সাগর বলেন, এবারই প্রথম ক্লিক বিজয় উৎসবে আয়োজন করা হয়েছে উদ্যোক্তা মেলার। আমার বিশ্বাস, উদ্যোক্তারা তাদের প্রতিষ্ঠান ও পণ্যের পরিচিতি বাড়াতে এই উৎসব বিশেষ ভূমিকা রাখবে। বিশেষ ছাড়সহ অর্ধশত তরুণ উদ্যোক্তা তাদের প্রতিষ্ঠানের তৈরি বিভিন্ন পণ্যসামগ্রী নিয়ে উদ্যোক্তা মেলায় অংশগ্রহণ করছে।

আয়োজক সংশিষ্টরা জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে শুরু হবে মেলা হয়। বিকাল ৪টায় মঞ্চে পরিবেশিত হয় ব্যান্ড সংগীত। এরপর সন্ধ্যা ৭টায় মঞ্চে পরিবেশিত হয় বাংলা চলচ্চিত্র নিয়ে বিশেষ অনুষ্ঠান ‘ঐতিহ্যের বাংলা সিনেমা’। এছাড়াও দেশি পোশাকে ফ্যাশন শোসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। উৎসবের শেষ দিনেও পরিবেশিত হয় নিধার্রিত অনুষ্ঠানমালা
এদিকে ক্লিক ম্যাগাজিনের চলমান বিজয়ী ফেস্টে জিইসি কনভেনশনে ভিড় জমিয়েছেন ক্লিক ভক্তরা। প্রবেশ ফি না থাকায় মেলার সৌন্দর্য উপভোগ করতে দেখা গেছে মেলা প্রেমীরা। স্টলে পসরা সাজিয়েছেন উদ্যোক্তারা। প্লেকার্ড, ফেস্টুন, ব্যানারে পুরো কনভেশন সেন্টারটি ছেয়ে গেছে। এখন উৎসবে মুখরিত জিইসি এলাকা। মুখে মুখে শুধু ক্লিক আর ক্লিক।

ক্লিক ম্যাগাজিনের সফলতা—ব্যর্থতার বিষয়ে জানতে চাইলে সম্পাদক জালাল উদ্দীন সাগর বলেন, আমন্ত্রিতরা সফলতা—ব্যর্থতা নির্বাচন করবেন। ক্লিক পরিবার সব সময় চেষ্টা করেছে ব্যতিক্রমী কিছু উপহার দিতে। প্রতি বছর ক্লিক পরিবার এর জন্য কাজ করছে, ভবিষ্যতেও তা অবহ্যাত থাকবে। আমার সহকর্মী—সহযোগী, বন্ধু—বান্ধব শুভাকাঙ্খী, প্রতি কৃতজ্ঞ ও ধন্যবাদ জানাই।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ারুল আজিম আরিফ বলেন, স্বাধীনতার যুদ্ধের সময় আমরা তরুণ‌দের জাগা‌নোর চেষ্টা করেছিলাম। এখন ক্লিক ম্যাগা‌জিন চট্টগ্রাম সাজাতে তরুণ‌দের জাগানোর চেষ্টা চা‌লি‌য়ে যা‌চ্ছে। এ জন্য ক্লিক পরিবারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। বি‌শেষ ক‌রে ক্লিক ম্যাগা‌জি‌নের সম্পাদক জালাল উদ্দ‌নি সাগরকে ধন্যবাদ জানাই।

উল্লেখ্য, গতকাল ৯ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় ক্লিক বিজয় ফেস্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমানসহ রাঙামাটি জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মাহমুদা বেগমসহ অন্যান্য আমন্ত্রিত অতিথিরা।

ট্যাগস :
জনপ্রিয় সংবাদ

৬ প্রবীণ গুণী পেলেন ‘ক্লিক’ চট্টলার বীর সম্মাননা

আপডেট সময় ০২:৪৯:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২১

বার্ণাঢ্য দুই দিনব্যাপী ক্লিক ফেস্ট ২০২১ এর দ্বিতীয় দিনে ৬ প্রবীণ গুণী ব্যক্তি পেয়েছেন ‘ক্লিক’ চট্টলার বীর সম্মাননা।

আজ ১০ ডিসেম্বর, শুক্রবার জিইসি কনভেনশন সেন্টারে ক্লিক বিজয় উৎসবে আনুষ্ঠানিকভাবে এসব চট্টলার বীরদের হাতে সম্মানা স্মারক তুলে দেওয়া হয়।

সম্মাননা প্রাপ্ত ৬ প্রবীণ গুণী ব্যক্তিরা হলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষক ডা. মাহফুজুর রহমান, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ারুল আজিম আরিফ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. শিরীণ আখতার, ‘একুশে পদক’ প্রাপ্ত নাট্যশিল্পী আহমেদ ইকবাল হায়দার, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক প্রশাসক ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ খোরশেদ আলম সুজন এবং ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি তরফদার রুহুল আমীন।

অপরদিকে ক্লিক বিজয় উৎসবের দ্বিতীয় দিনে তারুণ্যের কাণ্ডারি হিসেবে মনোনিত ৮ ব্যক্তির হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন আমন্ত্রিত অতিথিরা। সম্মাননা প্রাপ্তরা হলেন, পিএইচপি শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জহিরুল ইসলাম রিংকু, জুনিয়র চেম্বার চট্টগ্রাম কসমোপলিটনের প্রেসিডেন্ট টিপু সুলতান, মানবাধিকার কর্মী আমিনুল হক বাবু, প্রকৌশলী সাইদুজ্জামান কিরণ, দৈনিক সমকালের চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান সাংবাদিক সারোয়ার সুমন, উদ্যোক্তা এ কে এম শহীদ চৌধুরী, সংগঠক জিনাত সোহানা চৌধুরী, শাহ এমরান মো. আলী চৌধুরী।

এ বিষয়ে ক্লিক সম্পাদক জালাল উদ্দীন সাগর বলেন, এবারই প্রথম ক্লিক বিজয় উৎসবে আয়োজন করা হয়েছে উদ্যোক্তা মেলার। আমার বিশ্বাস, উদ্যোক্তারা তাদের প্রতিষ্ঠান ও পণ্যের পরিচিতি বাড়াতে এই উৎসব বিশেষ ভূমিকা রাখবে। বিশেষ ছাড়সহ অর্ধশত তরুণ উদ্যোক্তা তাদের প্রতিষ্ঠানের তৈরি বিভিন্ন পণ্যসামগ্রী নিয়ে উদ্যোক্তা মেলায় অংশগ্রহণ করছে।

আয়োজক সংশিষ্টরা জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে শুরু হবে মেলা হয়। বিকাল ৪টায় মঞ্চে পরিবেশিত হয় ব্যান্ড সংগীত। এরপর সন্ধ্যা ৭টায় মঞ্চে পরিবেশিত হয় বাংলা চলচ্চিত্র নিয়ে বিশেষ অনুষ্ঠান ‘ঐতিহ্যের বাংলা সিনেমা’। এছাড়াও দেশি পোশাকে ফ্যাশন শোসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। উৎসবের শেষ দিনেও পরিবেশিত হয় নিধার্রিত অনুষ্ঠানমালা
এদিকে ক্লিক ম্যাগাজিনের চলমান বিজয়ী ফেস্টে জিইসি কনভেনশনে ভিড় জমিয়েছেন ক্লিক ভক্তরা। প্রবেশ ফি না থাকায় মেলার সৌন্দর্য উপভোগ করতে দেখা গেছে মেলা প্রেমীরা। স্টলে পসরা সাজিয়েছেন উদ্যোক্তারা। প্লেকার্ড, ফেস্টুন, ব্যানারে পুরো কনভেশন সেন্টারটি ছেয়ে গেছে। এখন উৎসবে মুখরিত জিইসি এলাকা। মুখে মুখে শুধু ক্লিক আর ক্লিক।

ক্লিক ম্যাগাজিনের সফলতা—ব্যর্থতার বিষয়ে জানতে চাইলে সম্পাদক জালাল উদ্দীন সাগর বলেন, আমন্ত্রিতরা সফলতা—ব্যর্থতা নির্বাচন করবেন। ক্লিক পরিবার সব সময় চেষ্টা করেছে ব্যতিক্রমী কিছু উপহার দিতে। প্রতি বছর ক্লিক পরিবার এর জন্য কাজ করছে, ভবিষ্যতেও তা অবহ্যাত থাকবে। আমার সহকর্মী—সহযোগী, বন্ধু—বান্ধব শুভাকাঙ্খী, প্রতি কৃতজ্ঞ ও ধন্যবাদ জানাই।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আনোয়ারুল আজিম আরিফ বলেন, স্বাধীনতার যুদ্ধের সময় আমরা তরুণ‌দের জাগা‌নোর চেষ্টা করেছিলাম। এখন ক্লিক ম্যাগা‌জিন চট্টগ্রাম সাজাতে তরুণ‌দের জাগানোর চেষ্টা চা‌লি‌য়ে যা‌চ্ছে। এ জন্য ক্লিক পরিবারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। বি‌শেষ ক‌রে ক্লিক ম্যাগা‌জি‌নের সম্পাদক জালাল উদ্দ‌নি সাগরকে ধন্যবাদ জানাই।

উল্লেখ্য, গতকাল ৯ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় ক্লিক বিজয় ফেস্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমানসহ রাঙামাটি জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মাহমুদা বেগমসহ অন্যান্য আমন্ত্রিত অতিথিরা।