সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৯:৫২ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
বোয়ালখালীতে সীমানা দেয়াল ভেঙ্গে প্রবাসীর দোকান দখলে নেওয়ার অভিযোগ পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচন: বোয়ালখালীতে চেয়ারম্যান হলেন যারা ভোটের তথ্যঁ সংগ্রহ করতে যাওয়া সাংবাদিকের ৮টি গাড়ি ভাঙচুর-বোয়ালখালি। বোয়ালখালীতে আ.লীগের ৪ বিদ্রোহীকে সাময়িক বহিষ্কার কালুরঘাট সেতুর আধুনিক নকশা!শিক্ষার্থী হিমায়েত কাউছার নির্বাচনকে ঘিরে কোনো ধরণের সহিংসতা চান না -হামিদুল হক মান্নান বহিরাগত’ লোকজন এলাকায় সাধারণ ভোটারদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে – মোকারম চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি নির্যাতন:সিনিয়র জেল সুপার, জেলারের বিরুদ্ধে মামালা চকরিয়ার গায়ক চট্টগ্রাম শহরে এসে করেন চুরি চকরিয়া উপজেলার পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডে জমি দখলের চেষ্টা, এমপির হস্তক্ষেপে দখল বন্ধ

তালেবানের প্রতি জাতিসংঘ মহাসচিবের বার্তা

কালেরপত্র ডেস্ক :

আফগানিস্তানে বর্তমান সহিংসতা নিয়ে উদবেগ প্রকাশ করেছে। এছাড়া আফগানিস্তান জুড়ে হামলা বন্ধ করে দেশটির সশস্ত্র গোষ্ঠি তালেবানকে আলোচনায় বসার আহবান জানিয়েছেন।

জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস আফগানিস্তানে বর্তমান সহিংসতা নিয়ে উদবেগ প্রকাশ করেছেন। এছাড়া আফগানিস্তানজুড়ে হামলা বন্ধ করে দেশটির সশস্ত্র গোষ্ঠি তালেবানকে আলোচনায় বসার আহবান জানিয়েছেন।

শুক্রবার (১৩ আগস্ট) সাংবাদিককের সঙ্গে সাক্ষাতকারে এবং টুইটার বার্তায় গুতেরেজ এ কথা বলেন।

এ সময় গুতেরেজ বলেন, আফগানিস্তানে তালেবানের দখল করা এলাকাগুলোয় নারীদের অধিকার চরমভাবে লঙ্ঘন করার ভয়াবহ তথ্য পেয়েছি।

তিনি আরো বলেন, তালেবান কর্তৃপক্ষ তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকাগুলোতে বিভিন্ন বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। এসব বিধিনিষেধের প্রধান লক্ষ্য হলো নারী ও সাংবাদিকরা।

গুতেরেজ বলেন, আফগান বালিকা ও নারীদের কষ্টে অর্জিত অধিকার তাদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়া হচ্ছে। এই ধরনের প্রতিবেদন দেখে আমার হৃদয় ভেঙ্গে গেছে।

গুতেরেজ বলেন, ‘দিনকে দিন আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে পরিষ্কারভাবে বলতে চাই একটি দীর্ঘস্থায়ী গৃহযুদ্ধের পথে ধাবিত হচ্ছে দেশটি। আর এটি হলে পুরো বিশ্ব থেকে আফগানিস্তান বিচ্ছিন্ন হয়ে পরবে।’

এছাড়া তালেবানের উদ্দেশ্যে গুতেরেজ বলেন, যুদ্ধ বন্ধ করে ‘সৎ বিশ্বাস’ নিয়ে আলোচনায় বসুন। দীর্ঘমেয়াদি গৃহযুদ্ধ এড়াতে আলোচনায় বসার কোনো বিকল্প নেই।’

এদিকে জাতিসংঘ মহাসচিবের বার্তা এমন সময়ে এল যখন কান্দাহার দখলের পর কাবুলের দিকে জোরেসোরে এগোচ্ছে তালেবান যোদ্ধারা। তাদের অবস্থান রাজধানী কাবুল থেকে মাত্র ৪০ কিলোমিটার দূরে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্র আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের দূতাবাস খালি করার তোড়জোড় শুরু করেছে। কাবুলে মার্কিন দূতাবাস থেকে কর্মকর্তাদের সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এজন্য অতিরিক্ত তিন হাজার সৈন্য কাবুলে পাঠানো সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ব্রিটেন, কানাডা তাদের দূতাবাস খালি করার ঘোষণা দিয়েছে।

এরই মধ্যে আফগানিস্তানের ৩৪ প্রদেশের মধ্যে তালেবান ১৮টির নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। অন্যদিকে মার্কিন গোয়েন্দা রিপোর্টে জানানো হয়েছে, ৩০ দিনের মধ্যে কাবুলের পতন হয়ে যেতে পারে। সেই সঙ্গে তালেবানের হাতে তিন মাসের মাথায় আফগানিস্তানের পুরো ক্ষমতা চলে আসতে পারে।

সংবাদটি শেয়ার করুন :

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত